প্রশ্নঃ ছেলেটিকে চোখে চোখে রাখ – বাক্যের দ্বিরুক্তি কোন অর্থে ব্যবহৃত হয়েছে ?
ক. ভাবের প্রগাঢ়তা
খ. কালের বিস্তার
গ. সতর্কতা
ঘ. আধিক্য
উত্তরঃ গ

প্রশ্নঃ কোনটি দ্বিরুক্তিটি ধ্বন্যাত্নক শব্দ ?
ক. শন শন
খ. শীত শীত
গ. পড়ো পড়ো
ঘ. হাতে নাতে
উত্তরঃ ক

প্রশ্নঃ দ্বিরুক্ত কথাটির আভিধানিক অর্থ কি ?
ক. একবার উক্ত হয়েছে এরূপ শব্দ বা পদ
খ. দুবার উক্ত হয়েছে এরূপ শব্দ বা পদ
গ. তিনবার উক্ত হয়েছে এরূপ শব্দ বা পদ
ঘ. চারবার উক্ত হয়েছে এরূপ শব্দ বা পদ
উত্তরঃ খ

প্রশ্নঃ দ্বিরুক্ত শব্দের অন্য নাম কি ?
ক. যুক্ত শব্দ
খ. শব্দ দ্বৈত
গ. বিভক্তিযুক্ত শব্দ
ঘ. সমাস
উত্তরঃ খ

প্রশ্নঃ জ্বর এর সাথে কোন শব্দের দ্বিরুক্তিতে সামান্য অর্থ প্রকাশ পায় ?
ক. জারি
খ. বিকার
গ. জ্বর
ঘ. ব্যাধি
উত্তরঃ গ

প্রশ্নঃ দ্বিরুক্তি কয় রকমের গঠিত হয়?
ক. তিন রকমের
খ. দু’রকমের
গ. চার রকমের
ঘ. পাঁচ রকমের
উত্তরঃ ক

প্রশ্নঃ পদের দ্বিরুক্তিতে বিশেষণের ব্যবহার কোনটি ?
ক. ফাকে ফাকে
খ. হেসে হেসে
গ. আসি আসি
ঘ. ভালয় ভালয়
উত্তরঃ ঘ

প্রশ্নঃ লাল লাল ফুল – বাক্যে কি অর্থে দ্বিরুক্ত হয়েছে ?
ক. ইষৎ
খ. শূন্য
গ. একবচন
ঘ. বহুবচন
উত্তরঃ ঘ

প্রশ্নঃ সমার্থক বা একার্থক সহচর শব্দযোগে কোন দ্বিরুক্ত শব্দ গঠিত হয়েছে?
ক. চাল-চলন
খ. তালা-চাবি
গ. ভাত-টাত
ঘ. জারি-জুরি
উত্তরঃ ক

প্রশ্নঃ ভয়ে গা ছম ছম করছে এ বাক্যের – দ্বিরুক্তি শব্দ কি বুঝাচ্ছে ?
ক. ভাবের গম্ভীরতা
খ. বিশেষণ বাচকতা
গ. অনুভূতি বা ভাব
ঘ. পৌনঃপুনিকতা
উত্তরঃ গ

প্রশ্নঃ নিচের কোন বাক্যেটির দ্বিরুক্ত শব্দ পারস্পরিকতা অর্থ বোঝাচ্ছে ?
ক. তোমার নাই নাই ভাব আর গেল না
খ. ঝাঁকে ঝাঁকে পাখি আকাশে উড়ছে
গ. ভালয় বালয় বিয়েটা হয়ে গেল
ঘ. দূরে দূরে এক ঝাঁক বক দেখা যাচ্ছে
উত্তরঃ খ

প্রশ্নঃ রাশি শব্দের দ্বিরুক্তিতে কোন অর্থে প্রকাশ পায় ?
ক. সামান্য
খ. আধিক্য
গ. শূন্য
ঘ. আতিশষ্য
উত্তরঃ খ

প্রশ্নঃ তুমি ‘রোজ রোজ’ এখানে আস কেন ? বাক্যে রোজ রোজ কোন ধরণের দ্বিরুক্ত ?
ক. অনুকার দ্বিরুক্ত
খ. শব্দের দ্বিরুক্ত
গ. পদের দ্বিরুক্ত
ঘ. কোনটিই নয়
উত্তরঃ খ

প্রশ্নঃ ‘কুহু কুহু’ কোন দ্বিরুক্তির উদাহরণ?
ক. শব্দাত্মক দ্বিরুক্তির উদাহরণ?
খ. পদাত্মক দ্বিরুক্তি
গ. ধ্বন্যাত্মক দ্বিরুক্তি
ঘ. অব্যয়ের দ্বিরুক্তি
উত্তরঃ গ

প্রশ্নঃ বাংলা ভাষার কোন শব্দের দ্বিরুক্তি হতে পারে?
ক. বহুবচন শব্দের
খ. একবচন শব্দের
গ. যে কোন শব্দের
ঘ. লিঙ্গবাচক শব্দের
উত্তরঃ গ

প্রশ্নঃ ধ্বন্যাত্মক ‘একক’ বা দ্বিরুক্ত উদাহরণ কোনটি?
ক. মর্মর
খ. চিকমিক
গ. চলছল
ঘ. হাপুস-হুপুস
উত্তরঃ ক

প্রশ্নঃ শূন্যতাজ্ঞাপক শব্দ কোনটি?
ক. টন-টন
খ. বিড়-বিড়
গ. ঠন-ঠন
ঘ. বা-বা
উত্তরঃ গ

প্রশ্নঃ ‘সমার্থক’ শব্দযোগে দ্বিরুক্তি হয়েছে-
ক. ভাল-মন্দ
খ. তোড়-জোড়
গ. ধন-দৌলত
ঘ. আমির-ফকির
উত্তরঃ গ

প্রশ্নঃ বিশেষণ পদযোগে গঠিত দ্বিরুক্ত শব্দ কোনটি?
ক. লাল লাল ফুল
খ. জ্বর জ্বর লাগছে
গ. গ্রামে গ্রামে যাব
ঘ. ভাইয়ে ভাইয়ে যুদ্ধ
উত্তরঃ ক

প্রশ্নঃ বিভক্তিহীন শব্দ দুবার উক্ত হলে তাকে কী বলা হয় ?
ক. পদের দ্বিরুক্তি
খ. শব্দের দ্বিরুক্তি
গ. অনুকার দ্বিরুক্তি
ঘ. কোনটিই নয়
উত্তরঃ খ

প্রশ্নঃ ‘সারা বাড়িটা খাঁ খাঁ করছে- এখানে ‘খাঁ খাঁ হল-
ক. ধ্বন্যাত্মক শব্দ
খ. মিশ্র শব্দ
গ. দ্বিরুক্ত শব্দ
ঘ. শব্দদৈত
উত্তরঃ গ

প্রশ্নঃ ‘লাল লাল ফুল’-কাব্যে কি অর্থে দ্বিরুক্তি হয়েছে?
ক. শূন্য
খ. একবচন
গ. বহুবচন
ঘ. ঈষৎ
উত্তরঃ গ

প্রশ্নঃ ‘হাতে হাতে ফল পাওয়া’ বাক্যাংশে ‘হাতে হাতে’ হল-
ক. দ্বিরুক্ত শব্দদ্বৈত
খ. শব্দদ্বৈত
গ. অনুকার শব্দদ্বৈত
ঘ. ধ্বন্যাত্বক শব্দদ্বৈত
উত্তরঃ ক

প্রশ্নঃ নিচের কোনটি যুগ্ম দ্বিরুক্তি শব্দের উদাহরণ?
ক. মিটমিট
খ. ঘরে ঘরে
গ. হাতাহাতি
ঘ. সরাসরি
উত্তরঃ গ

প্রশ্নঃ যুগ্মরীতিতে কিভাবে দ্বিরুক্তি শব্দ গঠন করা যায়?
ক. একই পদের অবিকৃত অবস্থায় দুবার ব্যবহার করে
খ. একই শব্দের ঈষৎ পরিবর্তন করে দুবার ব্যবহার করে
গ. বিশিষ্টার্থক বাগদারার সাহায্যে
ঘ. কোনটি না
উত্তরঃ খ

প্রশ্নঃ শব্দদ্বৈত কি?
ক. দুটি শব্দের প্রারম্ভিকতার বাব
খ. দুটি শব্দের পাশাপাশি ব্যবহার
গ. একই শব্দদুবার ব্যবহার করে নতুন অর্থ প্রদান করা
ঘ. দুটি শব্দ সহযোগে অর্থ দুর্বোধ্য করা
উত্তরঃ ঘ

প্রশ্নঃ নিচের কোন শব্দগুচ্ছ বিশেষ্য দ্বিরুক্তির উদাহরণ?
ক. বাড়ি-বাড়ি, গাড়ি-বাড়ি, বস্তা-বস্তা
খ. ঘন-ঘন, বড়-বড়, গরম-গরম
গ. যে-যে, সে-সে, কেহ-কেহ, যাহা-তাহা
ঘ. দেখতে-দেখতে, যায়-যায়, হায়-হায়
উত্তরঃ ক

প্রশ্নঃ কোন দ্বিরুক্তিটি ধ্বন্যাত্নক শব্দ ?
ক. শন শন
খ. শীত শীত
গ. পড়ো পড়ো
ঘ. হতে নাতে
উত্তরঃ ক

প্রশ্নঃ পদাত্নক দ্বিরুক্তি কয়ভাবে গঠিত হয় ?
ক. ৪ ভাবে
খ. ৩ ভাবে
গ. ২ ভাবে
ঘ. ৫ ভাবে
উত্তরঃ গ

প্রশ্নঃ যে সকল শব্দ শব্দের আপন আকৃতিতেই দ্বিরুক্ত হয় তাকে কোন প্রকার দ্বিরুক্তি বলে ?
ক. পদাত্নক দ্বিরুক্তি
খ. ধ্বন্যাত্নক দ্বিরুক্তি
গ. শব্দাত্নক দ্বিরুক্তি
ঘ. ক্রিয়াত্নক দ্বিরুক্তি
উত্তরঃ গ

আরো পড়ুন: