প্রশ্নঃ পদ প্রকরণ ব্যাকরণের কোন অংশে আলোচিত হয় ?
ক. ধ্বনিতত্ত্বে
খ. রূপতত্ত্বে
গ. বাক্যতত্ত্বে
ঘ. অর্থতত্ত্বে
উত্তরঃ খ

প্রশ্নঃ বহুপদময় বিশেষণ সর্বদাই বাক্যের কোথায় বসে ?
ক. বিশেষ্যের পরে
খ. বিশেষণের পরে
গ. বিশেষণের পূর্বে
ঘ. বিশেষ্যের পূর্বে
উত্তরঃ ঘ

প্রশ্নঃ ‘ভিক্ষুকটা যে পিছনে লেগেই রয়েছে, কী বিপদ’! এই বাক্যের ‘কী’ এর অর্থ-
ক. ভয়
খ. রাগ
গ. বিরক্তি
ঘ. বিপদ
উত্তরঃ গ

প্রশ্নঃ যে পদ বিশেষ্য ও সর্বনাম ভিন্ন অন্যপদকে বিশেষিত করে তাকে কি বলে ?
ক. বিশেষ্যের বিশেষণ
খ. বিশেষণের বিশেষণ
গ. বাক্যের বিশেষণ
ঘ. ভাব বিশেষণ
উত্তরঃ ঘ

প্রশ্নঃ হাসেম কিংবা কিংবা কাসেম এর জন্য দায়ী। এ বাক্যে কিংবা কোন ধারনের অব্যয় ?
ক. সংযোজক অব্যয়
খ. বিয়োজক অব্যয়
গ. সংকোচক অব্যয়
ঘ. সম্বোধন অব্যয়
উত্তরঃ খ

প্রশ্নঃ ‘মন্ত্রের সাধন কিংবা শরীর পাতন।’ এখানে ‘কিংবা’ অব্যয়টি কোন অব্যয়?
ক. অনুকার অব্যয়
খ. বিয়োজক অব্যয়
গ. সমুচ্চয়ী অব্যয়
ঘ. সংযোজন অব্যয়
উত্তরঃ খ

প্রশ্নঃ কারক বিভক্তিযুক্ত পদ সাধারণত বাক্যের কোথায় বসে ?
ক. বিশেষণের পূর্বে
খ. বিশেষণের পরে
গ. বাক্যের শেষে
ঘ. বাক্যের প্রথমে
উত্তরঃ ক

প্রশ্নঃ দ্বিকর্মক ক্রিয়া কাকে বলে?
ক. যে ক্রিয়ার কর্ম নেই
খ. যে ক্রিয়ার দুটি কর্ম থাকে
গ. যে ক্রিয়া বিশেষ্যরূপে ব্যবহৃত
ঘ. উপরের সবকটি
উত্তরঃ খ

প্রশ্নঃ ভাব প্রকাশের দিক দিয়ে ক্রিয়াপদ কয় প্রকার ?
ক. ৬ প্রকার
খ. ৪ প্রকার
গ. ৩ প্রকার
ঘ. ২ প্রকার
উত্তরঃ ঘ

প্রশ্নঃ ‘কোন দেশেতে তরুলতা সকল দেশের চাইতে শ্যামল’ -‘চাইতে’ ক্রিয়াটির ব্যবহার কোন ধরনের?
ক. অনন্বয়ী অব্যয়
খ. অনুসর্গ তৈরি
গ. ক্রিয়াবাচক বিশেষণ গঠন
ঘ. বিশেষণ বাচকতা
উত্তরঃ ঘ

প্রশ্নঃ গ্রন্থ, ধর্মগ্রন্থ, সংবাদপত্র, সাময়িক পত্রিকা ইত্যাদির নাম কোন বিশেষ্যের অন্তর্গত?
ক. জাতিবাচক
খ. সংজ্ঞাবাচক
গ. সমষ্টিবাচক
ঘ. বস্তুবাচক
উত্তরঃ খ

প্রশ্নঃ অপরিবর্তনীয় পদ কোনটি ?
ক. অব্যয়
খ. ক্রিয়া
গ. সর্বনাম
ঘ. বিশেষ্য
উত্তরঃ ক

প্রশ্নঃ ভৌগোলিক স্থানের নাম কোন বিশেষ্যের অন্তর্গত?
ক. নামবাচক
খ. জাতিবাচক
গ. ভাববাচক
ঘ. সংখ্যাবাচক
উত্তরঃ ক

প্রশ্নঃ ‘ইচ্ছা’ বিশেষ্যর বিশেষণটি নির্দেশ করুন-
ক. ইচ্ছাময়
খ. ঐচ্ছিক
গ. ইচ্ছুক
ঘ. অনিচ্ছা
উত্তরঃ খ

প্রশ্নঃ ‘টান’ কোন ধাতুর উদাহরণ?
ক. বিদেশী
খ. গম্‌
গ. কর্‌
ঘ. দেখ্‌
উত্তরঃ ক

প্রশ্নঃ হঠাৎ শুস্ক পাতার মর মর শব্দে আমি ভয় পেয়ে গেলাম। এখানে মরমর কোন ধরনের অব্যয় ?
ক. অনুসর্গ
খ. অনুকার
গ. সমুচ্চায়ী
ঘ. অনন্বয়ী
উত্তরঃ খ

প্রশ্নঃ নিচের কোনগুলো খাঁটি বাংলা অব্যয় শব্দের উদাহরণ ?
ক. সহসা, হঠাৎ, অর্থাৎ
খ. আর, ও , হাঁ
গ. আলবত, বহুত, খুব
ঘ. বরং, আপাতত, বস্তুত
উত্তরঃ খ

প্রশ্নঃ মৌলিক ধাতুর পরে প্রেরণার্থে ‘আ’ প্রত্যয় যোগে কোন ধাতু গঠিত হয়?
ক. প্রজজক/নিজন্ত ধাতু
খ. নাম ধাতু
গ. সাধিত ধাতু
ঘ. মৌলিক ধাতু
উত্তরঃ ক

প্রশ্নঃ ধিক তারে, শত ধিক নিলজ্জ যে জন – কোন বিশেষণের উদাহরণ ?
ক. অব্যয়ের বিশেষণ
খ. বাক্যের বিশেষণ
গ. ভাববিশেষণ
ঘ. ক্রিয়া বিশেষণ
উত্তরঃ ক

প্রশ্নঃ বিশেষণ প্রধানত কয় ভাগে বিভক্ত ?
ক. ৪ ভাগে
খ. ২ ভাগে
গ. ৩ ভাগে
ঘ. ৫ ভাগে
উত্তরঃ খ

প্রশ্নঃ নিচের কোন পদে বিভক্তি যুক্ত হয় না ?
ক. বিশেষ্য পদে
খ. বিশেষণ পদে
গ. সর্বনাম পদে
ঘ. অব্যয় পদে
উত্তরঃ ঘ

প্রশ্নঃ ‘ছেলেটি গোল্লায় গেছে’-এই বাক্যে ক্রিয়াপদটি কোন অব্যয়?
ক. যৌগিক ক্রিয়া
খ. প্রযোজক ক্রিয়া
গ. দ্বিকর্মক ক্রিয়া
ঘ. মিশ্র ক্রিয়া
উত্তরঃ ঘ

প্রশ্নঃ অনুসর্গ অব্যয়ের অন্য নাম কি ?
ক. পদাশ্রয়ী অব্যয়
খ. উপসর্গ অব্যয়
গ. পদান্বয়ী অব্যয়
ঘ. বিভক্তিযুক্ত অব্যয়
উত্তরঃ গ

প্রশ্নঃ কোন বাক্যে সমুচ্চায়ী অব্যয় ব্যবহৃত হয়েছে ?
ক. ধন অপেক্ষা মান বড়
খ. তোমাকে দিয়ে কিছু হবে না
গ. ঢং ঢং ঘন্টা বাজে
ঘ. লেখাপড়া কর, নতুবা ফেল করবে
উত্তরঃ ঘ

প্রশ্নঃ কোন পদে বিভক্তি যুক্ত হয় না ?
ক. অব্যয়
খ. বিশেষণ
গ. সর্বনাম
ঘ. ক্রিয়া
উত্তরঃ ক

প্রশ্নঃ অপরিবর্তনীয় শব্দকে কোন পদ বলে?
ক. অব্যয় পদ
খ. ক্রিয়া পদ
গ. সর্বনাম পদ
ঘ. বিশেষ্য পদ
উত্তরঃ ক

প্রশ্নঃ নিচের কোনটি ক্রিয়া বিশেষণের উদাহরণ ?
ক. আস্তে যাও
খ. ঝুলন্ত সেতু
গ. দয়াময় তুমি
ঘ. নীল আকাশ
উত্তরঃ ক

প্রশ্নঃ কোনটি বর্তমান অনুজ্ঞার উদাহরণ?
ক. রোগ হলে ওষুধ খাবে
খ. চেষ্টা কর, সবই বুঝতে পারবে
গ. কাজটি করে ফেল
ঘ. কাজল একবার এস
উত্তরঃ গ

প্রশ্নঃ ‘পাঠক’ শব্দটি কোন শ্রেণীর ধাতু থেকে গঠিত?
ক. দেশী
খ. সংস্কৃত মূল
গ. বিদেশী
ঘ. খাঁটি বাংলা
উত্তরঃ খ

প্রশ্নঃ কোন বাক্যে অপ্রত্যক্ষ কর্ম ব্যবহৃত হয়েছে?
ক. ভদ্রলোক পড়ছেন
খ. ভদ্রলোক বই পড়ছেন
গ. ভদ্রলোক টেবিলে বই পড়ছেন
ঘ. ভদ্রলোক লাল বই পড়ছেন
উত্তরঃ ক

আরো পড়ুন: