প্রতি চার বছর পরপর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নতুন কোনো প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব নেওয়া মানেই প্রথম ১০০ দিনের জন্য কিছু নীতির পরিকল্পনা থাকবে।ত্রিশের দশকের মহামন্দার বছর তিনেকের মাথায় ১৯৩৩ সালে প্রথম ১০০ দিন’ শীর্ষক পরিকল্পনা শুরু করেন ফ্রাঙ্কলিন রুজভেল্ট। পরবর্তীতে ৮৮ বছর ধরে সবাই নতুন প্রেসিডেন্ট এটাকে প্রথা হিসেবে মেনে চলেন।

সে হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেওয়া জোসেফ আর বাইডেনের (46th U.S. President) প্রথম ১০০ দিনের অর্থনীতি পরিকল্পনা নিম্নরূপ:

১। করোনার প্রভাব মোকাবেলায় ১ লাখ ৯০ হাজার কোটি মার্কিন ডলারের পুনরুদ্ধার পরিকল্পনা।

২। যুক্তরাষ্ট্রের ১০ কোটি মানুষের জন্য ভ্যাকসিন বা টিকা নিশ্চিত করবেন।

৩। খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিতে প্রতি মাসে মাথাপিছু ১ হাজার ৪০০ ডলার দিবেন।

৪। বেকারত্ব বিমা হিসেবে প্রতি সপ্তাহে ৪০০ ডলার দিবেন।

৫। স্বল্প আয়ের মানুষদের গৃহায়ন সুবিধা দিতে ৩ হাজার কোটি ডলার।

৬। ছোট ব্যবসাগুলোকে কম সুদে ঋন অনুদান দিতে ৩৫ হাজার কোটি এবং স্কুল -কলেজ – বিশ্ববিদ্যালয় গুলোর জন্য ১৩ হাজার কোটি ডলার ব্যয় করবেন।

৭। করোনা কালে বেকার হয়ে পড়া ২ কোটি ৬০ লাখ কর্মীকে কাজে ফিরিয়ে আনবেন এবং মজুরি বাড়িয়ে ১৫ ডলার দিবেন।

৮। দের থেকে দুই কোটি মানুষকে স্বাস্থ্য বিমার আওতায় আনবেন।

৯। করপোরেট করে ২১ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ২৮ শতাংশ করবেন এবং ১০ হাজার ডলার পর্যন্ত শিক্ষা ঋন মওকুফ করবেন।

সুত্র : প্রথম আলো, ৩০ জানুয়ারি ২০২১

আরো পড়ুন: